গায়ত্রী তাঁর প্রতিবেশী লক্সমীকে শেখায় কিভাবে অনলাইন হওয়া যায়, আর তারপর থেকেই সে শাড়ী-ব্লাউস আর ব্যগের ডিজাইন অনুসন্ধান করতে থাকে। অনুপ্রানীত হয়ে বিভিন্ন কলাকৌশল রপ্ত করে সে তার সিবনকারী দক্ষতাকে অন্য উচ্চতায় নিয়ে যায়। এখন সে তার কাজের জন্য বেশি পারিশ্রমিক নিয়ে থাকে এবং তার অতিরিক্ত উপার্জন থেকে তার পড়াশোনার খরচ চালায়, মাকে সহায়তা দেয় এবং সম্প্রতি সে নিজের জন্য একটি সোনার আংটি কিনেছে।

সে তার অঞ্চলে নিরক্ষর ও অশিক্ষিতদের প্রশিক্ষন দিচ্ছে কিভাবে ভয়েস সার্চ দিয়ে তথ্য সংগ্রহ করা যায় যাতে শাড়ীর ডিজাইন থেকে শুরু করে পেটব্যাথা সম্পর্কিত সব ব্যাপারে সাহায্য পাওয়া যেতে পারে।

সে তার প্রতিবেশীদের শেখায় কিভাবে অনলাইন থেকে পরামর্শ নিয়ে

গোড়ালির ফাটা চামড়ার যত্ন নেওয়া যায়। তার প্রতিবেশীরা তার প্রতি কৃতজ্ঞ কেননা সে রোজ অনেকটা পথ অতিক্রম করে এবং তার পায়ের পাতা থেকে রক্ত ঝড়তে থাকে। তারা যদি কোন সমস্যার সমাধান চায়, তাহলে তা শুধু বলার অপেক্ষা মাত্র।

সংশ্লিষ্ট অন্যান্য কাহিনী

সবকিছু দেখুন
/images/stories/thumbs/mridula.jpg

মৃদুলা

স্কুলকে আরো মজাদার ও আকর্ষণীয় করতে সহায়তা করা।
/images/stories/thumbs/usha.jpg

উষা

গ্রামের সবাইকে ইংরেজী শেখান
/images/stories/thumbs/chetna.jpg

চেতনা

রোগের আরোগ্যের জন্য গ্রামের অন্যদের সহায়তা করা।